Quote

শরৎচন্দ্রের জন্মদিনে

সুন্দর কিছুর তুলনা যদি চাঁদের সাথে করা হয় আর সু-স্বাদু কোন খাবারের তুলনা যদি মধুর সাথে করা হয় তাহলে রোম্যান্টিক বিষয়াদিকে তুলনা করতে হবে শরৎচন্দ্রের উপন্যাসের সাথে।

কালের আবর্তনে বাঙ্গালীরা আজ অনেক আধুনিক, অনেক পরিবর্তন এসেছে এদের বেশভুষায়, পরিবর্তন এসেছে রুচি ও স্বাদে। কিন্তু এত কিছুর পরও শরৎবাবুর লেখা ঠিক ততদিন বেঁচে থাকবে যতদিন বাঙ্গালীর নামটি বেঁচে থাকবে।
প্রেম-ভালোবাসার কথা লিপিবদ্ধ করতে গিয়ে তিনি হিন্দু সমাজের কুসংস্কার, রাজ্যের অভাব অনটন ও সর্বনাশা মহামারির থেকে শুরু করে তৎকালীন নারী সমাজের প্রতি অবহেলার কথা অবলীলায় ফুটিয়ে তুলেছেন। নর-নারীর ভালোবাসার মাঝে দৈহিক প্রেমের পার্থক্য এবং মিল; এই দুটি বিষয়কেই তিনি অতি রুচিশীল ভাবে বর্ণনা করে গেছেন। ভালোবাসার মানে শুধু কাছে পাওয়া অথবা উপঢৌকন দেওয়া নেওয়া নয়, বরং বড় ভালোবাসা যে অনেক দুরেও ঠেলে দেয় তা শরৎবাবু উদাহরন সহ বুঝিয়েছিলেন। ভালোবাসার রোম্যান্টিকতা মুখ দিয়ে বার বার প্রকাশ করার মাঝে নয় বরং রোম্যান্টিকতার আসল রুপ হল রুচিশীলতা ও পবিত্রতা, রোম্যান্টিকতার কন্ঠ বড় নির্বাক কিন্তু হৃদয়ের পরম অনুভূতি সমুহের কোলাহলে পরিপূর্ণ।

সংস্কারবাদী নন্দিত এ কথাশিল্পী বেঁচে থাকুক তার কর্মের মাধ্যমে, প্রতিটি বাঙ্গালীর হৃদয়ে, বাংলার ঘরে ঘরে প্রতিটি পবিত্র ভালোবাসার যুগলে, প্রতিটি আধুনিক দেবদাসের শেষ চিঠিতে, অবহেলিত প্রতিটি বাঙ্গালী রমণীর হৃদয়ে… অনন্তকাল।

Quote

একলা বসে

মেঘলা আকাশের কাব্য লেখি তপ্ত মরুর বুকে,
সুখ আবহের সময় গুনি আজ বিষণ্ণতার ঝোঁকে।

কাব্য-রা সব হারিয়ে গেছে ঐ মরুর বালু ঝড়ে,
ভেবেই না পায় কোথায় পাবো কোন শ্মশান চরে?

ভেবে ভেবে দিন কেটে যায় রাত্রি বেলা শেষে,
আজও আমার স্বপ্ন কাটে এই একলা বসে বসে।

# এপ্রিল ১৭, ২০১৪

Quote

বর্ষা দিনে

বর্ষা দিনের অস্ত প্রাতে বাড়ি ফেরার কালে,
বেঁধেছিলে সখি আমায় স্নিগ্ধ মায়ার জালে।

কাদা মাটির আঠেল পথে হেঁটেছিলে পথ আমার সাথে,
লজ্জা ভেঙ্গে চুপটি করে রেখেছিলে হাত আমার হাতে।

বললাম- কেমন দেখায়, হাত ছেড়ে দাও,
লোকে দেখলে বলবে কি?
বললে- এই, তুমি কি সেই ছোট্ট খোকা,
নাক চাপলে বেড়োবে ঘি?

লজ্জা বটে পেয়েই ছিলাম আর বলিনি কিছু,
সেদিন ঐ স্মৃতি কথা ছাড়েনি আজো আমার পিছু।

# ২৬ চৈত্র ১৪১৯, রাত ৮:৪

Quote

আমার হতে ইচ্ছে করে

আমার হতে ইচ্ছে করে
রাখাল ছেলের বাঁশের বাঁশি;
সুরের তালে হাওয়ায় ভাসি।
নিশীথ রাতে উঠব বেজে,
ঝিঁঝিঁ পোকার সঙ্গী সেজে!

আমার হতে ইচ্ছে করে
দুষ্ট খুকির ফোকলা হাঁসি;
মুক্তা ছড়াব রাশি রাশি।
ঠাক’মা শুধু বলবে এসে –
দাতগুলো তোর খেয়েছে কিসে?

আমার হতে ইচ্ছে করে
ফেরওয়ালার মাথার ঝুড়ি;
সাজন-পাতি কুড়ি কুড়ি।
চুড়ি-মালার গয়না লয়ে,
ছুটব গাঁয়ের পথটি বয়ে!

# ১৮ ভাদ্র ১৪২১, রাত ০১:৫৪

Quote

জমাট স্মৃতি

জীবন পথের আকে বাকে,
কোন আবেগের মর্ম ডাকে।
দেখে ছিলাম কোন প্রভাতে,
অদুর হতে সেই তফাতে।
সেদিন হতে আজ অবধি,
জমেছে শুধু স্মৃতির নিধি।

আদি হতে ঐ অন্ত পাড়ে,
হাজার বছর খুঁজেছি তারে।
রয়েছে আজ নিকট অদুর,
আমার সীমায় তবুও সুদূর।

ইচ্ছা করে দু’হাত মেলে,
সকল ব্যথা দুঃখ ভুলে।
মোর বা’পাঁজরের শৃঙ্খলেতে,
আগলে রাখি শেষ অনন্ততে।

পাইনি তাহায় আজ অবধি,
বক্ষে আজি প্রেম সমাধি।
চাওয়া পাওয়ার অশেষ ধাঁধাঁয়,
স্মৃতি গুলি আজও কাঁদায়।

# বিকাল ৫ঃ১৯, ১লা মে ২০১৫